বোর্ড চেয়ারম্যান সাহেবের পরিচিতি

একজন সফল বিস্ময়কর আকর্ষনীয় ব্যক্তিত্ব হযরতুল আল্লাম আলহাজ্ব শাহ্‌ আহ্‌মদ শফী (দা.বা.)

সৃষ্টির আদিকাল হতে কেবল এ উদ্দেশ্যেই আম্বিয়া (আ.) প্রেরিত হয়েছিলেন যে, তাঁরা আল্লাহ্‌ পাকের সম্পর্ক হারা মানবজাতিকে ওয়াজ-নসীহত এবং ইরশাদ ও হিদায়াতের সাহায্যে পুণরায় আল্লাহ্‌ তাআলার সাথে তাদের সম্পর্ক স্থাপন করে দিবেন। এর প্রতি ইঙ্গিত করেই আল্লাহ্‌ তাআলা ইরশাদ করেন, “উদ্‌-উ ইলা সাবিলি রাব্বীকা বিল হিকমাতি ওয়াল মাওইজাতিল হাসানাতি”। অর্থাৎ- “[হে মুহাম্মদ (সা·)]! আপনি (বিভ্রান্ত মানব জাতিকে) সুন্দর নসীহত এবং হেকমতের সাথে আপনার প্রভুর পথের দিকে আহ্বান করুন”। এ জন্যই যে সমস্ত ওলামায়ে কেরাম উক্ত উদ্দেশ্যকে স্বীয় জীবনের একমাত্র লক্ষ্য রূপে অবলম্বন করেছেন এবং উক্ত উদ্দেশ্য সাফল্যমন্ডিত করার জন্য দুনিয়ার যাবতীয় লোভ-লালসা, ভয়-ভীতি ও তিরস্কার-ভর্ৎসনার প্রতি ভ্রুক্ষেপ না করে দাওয়াতে হকের মশাল হাতে বিশ্বের আনাচে-কানাচে ছড়িয়ে পড়েছেন, একমাত্র তাঁরাই নবীর সত্যিকারের ওয়ারিস বলে দাবী করতে পারেন। এই পবিত্র ও মহান মনীষীদের বদৌলতে অসংখ্য ঝড়-ঝঞ্ঝা ও বাধা-বিঘ্নের মোকাবিলায় আজও পৃথিবীর বুকে ইসলামের মশাল প্রজ্বলিত রয়েছে। ইন্‌শাআল্লাহ্‌, ক্বিয়ামত পর্যন্ত এটা প্রজ্বলিতই থাকবে। এ প্রসঙ্গে রাসূলুল্লাহ্‌ (সা·) ইরশাদ করেছেন। অর্থাৎ-আমার উম্মতের এক দল সর্বদা সত্যের উপর সুপ্রতিষ্ঠিত থাকবে। শত্রুপক্ষ তাদের কোনই ক্ষতি করতে পারবে না”।

এই নবী প্রেমিক বুযুর্গের বাল্য, প্রাথমিক ও উচ্চতর শিক্ষার স্তরটা ছিল খুবই অভিনব ও চাঞ্চল্যকর ঘটনায় ভরপুর। দারুল উলূম মুঈনুল ইসলাম হাটহাজারীতে হযরত মিশকাত শরীফ, জালালাইন শরীফ ও কাজী মুবারক ইত্যাদি কিতাব শেষান্তে সকল প্রতিকূলতা ও প্রতিবন্ধকতার পাহাড় ডিঙ্গিয়ে সত্য ন্যায়ের উৎস সন্ধানে ব্যাকুল হয়ে ইল্‌মে হাদীস ও ইল্‌মে তাফসীরের উচ্চতর শিক্ষা হাসিল করার অদম্য বাসনা নিয়ে ১৩৭১ হিজরী সনে ছুটে যান ইসলামী শিক্ষার প্রাণকেন্দ্র, ঐতিহ্যবাহী হাদীস শিক্ষার বিদ্যাপীঠ, সকল ইল্‌মের সূতিকাগার, এশিয়া মহাদেশের শ্রেষ্ঠতম দ্বীনি বিদ্যানিকেতন দারুল উলূম দেওবন্দে। দারুল উলূম দেওবন্দে হযরত ফুনুনাতে আলীয়া, দাওরায়ে হাদীস, দাওরায়ে তাফ্‌সীর-এর কোর্স অধ্যয়ন করেন। দেওবন্দে অধ্যয়নকালে আল্লামা হুসাইন আহ্‌মদ মাদানী (রাহ.)এর হাতে বাইআত গ্রহণ করতঃ খিলাফত প্রাপ্ত হওয়ার সৌভাগ্য লাভ করেন।

১৪০৭ হিজরী সালে তদানীন্তন জামিয়ার মহাপরিচালক হাফেয ক্বারী আল্লামা হামেদ (রাহ.) পরলোক গমন করলে জামিয়ার সর্বোচ্চ মজলিসে শূরার সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত অনুযায়ী জামিয়া পরিচালনার গুরুদায়িত্ব অর্পিত হয় বর্তমান স্বনামধন্য মুহ্‌তামিম হযরতুল আল্লাম আল্‌হাজ্ব শাহ্‌ আহ্‌মদ শফী (দা.বা.)এর উপর। বর্তমানে প্রধান পরিচালকের সাথে সাথে শাইখুল হাদীসের মহান দায়িত্বও তিনি অতি দক্ষতার সাথে সুচারুরূপে আঞ্জাম দিয়ে যাচ্ছেন।

হযরত র্বতমানে র্সবােচ্চ উলামা পরিষদ-বাংলাদশে এবং বাংলাদশে ক্বওমী মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড ও নূরানী তালীমূল কুরআন বোর্ড চট্টগ্রাম বাংলাদশে এর সম্মানিত চেয়ারম্যান এর গুরু দায়িত্ব সুচারুরূপে আঞ্জাম দয়িে যাচ্ছেন।

আধ্যাত্মিকতাঃ কর্মময় জীবনে হাজারো ব্যস্ততা সত্ত্বেও সময় ও নিয়মানুবর্তিতা হযরতের জীবনের এক অবিচ্ছেদ্য অংশ। দিবা-রাত্রির মূল্যবান সময়গুলোকে বিভিন্ন ভাগে বিভক্ত করে অধ্যাপনা, মাদ্রাসা পরিচালনা, সাথে সাথে নামায-তিলাওয়াত, যিকির-আযকার, দর্শনার্থী ও শুভার্থীদেরকে সাক্ষাতদান ইত্যাদি সম্পাদন করে থাকেন। গভীর রজনীতে বিশ্ববাসী যখন গভীর নিদ্রায় বিভোর, ঠিক সেই মুহূর্তে নিদ্রা ত্যাগ করে জরুরত সেরে দাঁড়িয়ে যান তাহাজ্জুদে এবং একান্ত নির্জনে বসে আদায় করেন বিভিন্ন ধরনের অযীফা। কায়মনোবাক্যে দোয়া করেন নিজের জন্য, দেশের জন্য, মুসলিম উম্মাহ্‌র জন্য।

বর্তমান নৈতিক ও চারিত্রিক অবক্ষয়ের তোড়ে ভেসে যাওয়া মানব গোষ্ঠীকে একটা স্থির ও পুতঃপবিত্র পথে টেনে আনার লক্ষ্যে অক্লান্ত কাজ করে যাচ্ছেন। আদর্শ ও অনুকরণীয় ব্যক্তি গড়ার জন্য যে ধরনের ব্যক্তিত্বের প্রয়োজন, হযরতুল আল্লাম আল্‌হাজ্ব মাওলানা শাহ্‌ আহ্‌মদ শফী (দা·বা·)এর জীবন প্রবাহ সে চাহিদা পুরণ করতে পূর্ণ সক্ষম হয়েছে। মহান রাব্বুল আলামীনের দরবারে আমরা প্রার্থনা করি, তিনি যেন হযরতের আফিয়াতময় হায়াতে বরকত দান করেন এবং হযরতকে জীবনের শেষ নিঃশ্বাস পর্যন্ত অর্পিত দায়িত্বে ব্রত রাখেন। যাতে হযরতের ফয়েজ, বরকত এবং দিক-নির্দেশনা আরো দীর্ঘকাল আমরা লাভ করতে পারি। তাছাড়া হযরতের অনলঝরা ওয়াজ-নসীহতে বহু পথহারা লোক সঠিক পথের দিশা লাভ করবে এবং বর্তমান ইসলাম ও মুসলমানদের সংকটকালীন সময়ে পথহারা মুসলমানরা যেন হযরতের কাছ থেকে পথের দিক-নির্দেশনা পান, সে কামনাই করি। আমীন

কপিরাইট.©২০১৬. নূরানী তা'লীমুল কুরআন বোর্ড চট্টগ্রাম বাংলাদেশ এর দ্বারা সর্বসত্ব সংরক্ষিত। প্রধান কার্যালয়:- দারুল উলূম মুঈনুল ইসলাম (হাটহাজারী মাদ্রাসা)।|| Developed ByYEARS Tech
Loading...
Facebook Messenger for Wordpress